টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড । টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম

প্রিয় পাঠক আশা করি আপনি টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড এবং টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম ও কিভাবে টিন সার্টিফিকেট ডাওনলোড করতে হয় সেটি আজকের এই উক্ত পোস্ট দ্বারা আপনি জানতে পারবেন। আর তাই উক্ত পোস্ট মনোযোগ সহকারে পড়ুন আশা করি সকলকেই টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড এবং টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম জানতে পারবেন। তাই উক্ত পোস্টে সম্পন্ন করতে থাকুন আশা করি সকলকে জানতে পারবেন?
টিন-সার্টিফিকেট-ডাউনলোড-টিন-সার্টিফিকেট-রেজিস্ট্রেশন-করার-নিয়ম
টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড এবং টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম, টিআইএন সার্টিফিকেট বের করার নিয়ম ২০২৪ নতুন নিয়মে কিভাবে বের করতে হয় সেগুলো জানতে পারবেন। তিন নাম্বার দিয়ে সার্টিফিকেট বের করার নিয়ম কি এবং কিভাবে সেট করতে পারবেন সেগুলো আপনি জানতে পারবেন। তাই আর দেরি না করা সম্পূর্ণ প্রশ্ন করতে যাব না পেয়ে যাবেন।
পোস্ট সূচিপত্রঃ 

ভূমিকা

টিন নাম্বার দে কিভাবে টিন সার্টিফিকেট বের করতে হয় সেটা আপনি জানতে পারবেন এবং সেটি ভিজিট করে আপনার টিম সার্টিফিকেট ডাউনলোড করতে পারবেন। টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড এবং অপশনে কিভাবে আপনি টিআইএন নাম্বার দিয়ে পাসওয়ার্ড দিয়ে লাইন সাইন ইন করুণ। Tax Record অপশন থেকে টেন সার্টিফিকেট লিংক এ ক্লিক করে আপনি সেটা ডাউনলোড করতে পারবেন।

টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম ক্লিক করার পর আপনার হারানো টিম সার্টিফিকেট আপনি বের করতে পারবেন ইচ্ছা করলে। আপনি ইচ্ছা করে চালানোর নতুন কিছু টিন সার্টিফিকেট বের করতে পারবেন। সার্টিফিকেট করতে হলে আপনাকে যেগুলো নিয়ম মেনে চলতে হবে সেগুলো নিয়ম আজকে আমাদের এই পোস্টের মাধ্যমে জানতে পারবেন। 
টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড আপনাকে রিটার্ন নিয়ে আসছেন অথবা আপনি যেখানে সার্টিফিকেট তার ব্যবহার করে চাকরি করেন সেখান থেকে চলে আসছেন সেখানে থেকে আপনি টেন সার্টিফিকেট ব্যবহার করতে পারবেন। টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম আপনি চাইলে আগের পুরনো টেনশন সার্টিফিকেট আপনার নতুন করে আবার বানাতে পারবেন সকল কাজ কম করতে পারবেন। চিন্তার কিছু নেই রিটান ওয়েবসাইট হয়তো আপনি টেন সার্টিফিকেট বের করতে পারবেন ওয়েবসাইট থেকে বের করার নিয়ম সম্পর্কে আমরা আপনাকে জানিয়ে দেবো।

টিআইএন সার্টিফিকেট কি। What is a Tin Certificate?

টিন অথবা টিআইএন সার্টিফিকেট এর পূর্নরূপ হচ্ছে ট্যাক্সপেয়ার আইডেনটি ফিকেশন। টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড মূলত এটি একটি এই ধরনের এক নাম্বার যেটার কারণে আপনি কর দাতাদের শনাক্ত করতে পারবেন। অর্থাৎ মূল কথা হলো টিআইএন বা টিন সার্টিফিকেট একজন কার দাতার জন্য দরকার। টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম কারণ এটা সব সময় পরিচয় পত্রের মত কাজ করে থাকে। 

যেমন ভাবে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়ার সহজ ও দ্রুতভাবে করে থাকে তবে মানুষ জাতীয় রাজস্ব বোর্ড চালু করেছে। ঠিক সেইভাবে এটি কোন যখন ভাবে লক্ষ জাতীয় রেজিস্টার হিসেবে চালু করা যায়। দ্রুত লক্ষ করলে আপনি জাতীয় রাজস্ব বোর্ড চালু করতে পারবেন অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন এর পদ্ধতি সম্পর্কে আপনি জানতে পারবেন। এ পদ্ধতিতে কয়েকটি বিষয় যেটা আপনি সেগুলো করতে পারবেন সেগুলো আজকে আপনাকে জানানো হয়েছিল সেটাও আপনি জানানো হবে যেগুলো আপনারা চাইলে দেখতে পারেন। 
তবে সে ক্ষেত্রে আপনি মনে রাখবেন সব সময় এখানে যেন ভারতে করে একটা পেন গজানো হয় সেটা আপনার খেয়াল রাখতে হবে। টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড কারণ এখানে গিয়ে প্রেম করতে আপনি দেবেন সেটা সবসময় ১২ ভোটার হতে হবে। টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম যারা এর আগে টিন সার্টিফিকেট করেছেন অথবা তাদের টিন সার্টিফিকেটের পাসওয়ার্ড সংখ্যা আমার নাম্বার সংখ্যা খুব কম বারোটি নয় তাদের ক্ষেত্রে টেনসার নতুন করে আবার করতে হবে। অর্থাৎ তারা রেজিস্ট্রেশন করতে হলে আপনাকে ১২ ভিজিটের পিন নাম্বার দিতে হবে।

আপনার কখন টিন সার্টিফিকেট প্রয়জন হবে?

  • আপনার প্রতিবছরের উপার্জন যদি আয়করসীমার উপরে হয়, তবে আপনাকে ইনকাম ট্যাক্স দিতে হবে সব সময় তার আগে আপনাকে প্রমাণ করতে হবে।
  • ব্যবসার জন্য টিন লাইসেন্স করতে হবে বা নবায়ন করলেও চলবে।
  • কোন প্রকার কোনো ব্যবসায়িক সমিতি অথবা বাবারীদের কোন নিবন্ধিত গঠনের সদস্য হতে হবে।
  • কোন কোম্পানির শেয়ার কেনার জন্য আপনি সার্টিফিকেট গ্রহণ করতে হবে।
  • রাইড শেয়ারিং নিতে গেলে কোম্পানিতে গাড়ি দিতে হলে আপনাকে টিন সার্টিফিকেট নিতে হবে।
  • আপনি যখন আপনার নিজের কোম্পানির নিবন্ধন করবেন তখন আপনাকে টিচার সার্টিফিকেট নিতে হবে।
  • আপনি যখন টাইম থেকে ক্রেডিট কার্ড পেতে চান তো যে ক্রেডিট কার্ড নিতে চান তাহলে আপনাকে টেনশনে দিতে হবে।
  • ব্যাংকের লোন এবং আবেদন করতে চাইলে আপনার টেন সার্টিফিকেট দরকার।
  • সিটি করপোরেশনের জন্য ভেতরের কোন জমি যদি আপনি কিনতে চান বা ভবন বা প্লাটফর্ম রেজিস্টার করতে চান তাহলে আপনার টিন সার্টিফিকেট দরকার।
এই কারণ গুলো ব্যতিত আরো অনেক কারণ আছে যার কারণে আপনার টিন সার্টিফিকেট প্রয়োজন পরবে।

টিন সার্টিফিকেট করতে কি কি লাগে?

  • আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয় পত্র দরকার।
  • আবেদন কারীর মোবাইল নাম্বার দরকার।
  • আবেদনকারীর পিতা এবং মাতার নাম।
  • আবেদনকারীর স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানা দরকার।
  • কোম্পানির ক্ষেত্রে যদি হয় তাহলে আপনাকে নিবন্ধন নাম্বার দিতে হবে।

টিন সার্টিফিকেট করতে কত টাকা লাগে?

টন সার্টিফিকেট করতে কোন টাকা লাগে না। আপনি সরাসরি আয়কর ওয়েবসাইটে ঢুকতে পারবেন এবং সেখানে ঢুকে আপনি সেখান থেকে আপনি নিজেই চাইলে করে নিতে পারবেন। টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড আপনি আপনার ইচ্ছা মত সময়ে যখন সময় ফ্রি থাকলে আপনি টেনশন করার সাইডে ঢুকে আপনি সেখান থেকে নিজে তৈরি করতে পারবেন। টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম এর জন্য কোন পরিমাণে কোন ফ্রি দিতে হবে না।

Tin নাম্বার দিয়ে টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড। E-Return টিন সার্টিফিকেট লগইন । টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম

টিন সার্টিফিকেট বাতিল করার বিষয় আয়কর আইনের মতামত কি তারা কি বলে? টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড সে ক্ষেত্রে আয়কর অধ্যাদেশের মধ্যে থেকে ১৯৮৪ সালের 75(1b) তে বলা হয়েছে যে, আয়কর বছরের আয়ের ক্ষেত্রে অথবা তার পুরো বছর সহ পরপর বছরের মধ্যে ব্যক্তিগত কোনো কারণ থাকতে পারে আয়কর থেকে। টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম তবে সেক্ষেত্রে তাকে কর রিটার্ন জমা দিতে হবে।
75. আয়ের রিটার্ন। (১) ধারা ৭৬-এ প্রদত্ত ব্যতীত প্রত্যেক ব্যক্তি কর ডেপুটি কমিশনারের কাছে, তার আয়ের রিটার্ন বা অন্য কোন ব্যক্তির আয়ের একটি রিটার্ন দখল করতে পারবেন বা দায়ের করতে পারবেন তিনি এই অধ্যাদেশের অধীনে তাদের কর নির্ধারণ যোগ্য।
  1. যদি তার আয় বছরের আয়ের থেকে সর্বাধিক পরিমাণের হয়। তবে তার বৌদ্ধদের অধীনে অধ্যাদেশর অধীনে কর ধার্য হয় না।
  2. যদি তার কাছ থেকে যেকোনো একটির জন্য কর নির্ধারণ করা হয় তাহলে তিন বছর অব্দিজে আয় করবে সে ছেলে বছরের আয়ের থেকে আগে দিতে হবে।

ই-রিটার্ন ওয়েবসাইটে রেজিষ্ট্রেশন করার নিয়ম ২০২৪ । টি-আইএন নম্বর দিয়ে লগিন করতেই পেয়ে যাবেন টিআইএন সার্টিফিকেট?

টিন-সার্টিফিকেট-ডাউনলোড-টিন-সার্টিফিকেট-রেজিস্ট্রেশন-করার-নিয়ম
  • ট্রেন নাম্বার দিয়ে আপনি যদি টিন সার্টিফিকেট বের করতে চান তাহলে আপনাকে প্রথমে ভিজিট করতে হবে। https://etaxnbr.gov.bd এবং eReturn অপশনে যেতে হবে।
  • এবার Registration বাটনে ক্লিক করুন। আপনি একটি ১২ ভিজিটের পিন নাম্বার লিখুন।
  • নির জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করার সময় আপনার মোবাইল নাম্বারটা লিখুন। এবার কাপচার কোডটি Capital Letter, Small Letter এবং সংখ্যা গুলো সঠিক ভাবে লিখুন। এর পরে Verofy বাটম টিতে ক্লিক করুণ।
  • আপনার মোবাইলে একটা ওটিপি (OTP) কোর্ড পাঠানো হবে। ওটিপি দিন এবং আপনার পছন্দমত একটি পাসওয়ার্ড সেট করুন এরপর রেজিষ্টেশন সম্পন্ন করুন।
  • পাসওয়ার্ড অবশ্যই আপনাকে ইংরেজিতে দিতে হবে। Capital Letter + Small Letter + Number + Mark ব্যবহার করে তা সেট করবেন।
  • সর্বশেষে eTeturn সিস্টেম Sign In করুণ। Tax Record অপশন থেকে Tin Certificate লিংক টিতে ক্লিক করুণ।
  • Download বাটনে ক্লিক করে আপনি আপনার হারানো টেন্স সার্টিফিকেটটি PDF হিসেবে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

কেউ মারা গেলে তার টিন সার্টিফিকেট কি হবে?

আপনি যদি মনে করেন যে আপনার বাবার পরে আপনার সে ট্রেন সার্টিফিকেটটি বাতিল করার প্রয়োজনীয়তার নির্ভরযোগ্য করে তার উত্তরের রাজাকারীদের উপর সেগুলো পড়ে যায়। টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড এমন কোন সমস্যার সমাধান হয়ে থাকে তাহলে বাবার নামে থাকা যায় টেনশন সার্টিফিকেট বাতিল করলে আপনার ব্যবসায় সংক্রম সহজপতন করে নতুনভাবে সেগুলো করতে পারবেন। 
টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম কিংবা আপনি যদি চান যে বড় ধরনের জটিলতা তৈরি হয় সেক্ষেত্রে আপনি বাতিল করতে পারবেন। বা উত্তরাধিকারী হলে প্রতিবছর বছরের Assessment করাতে পারবেন। আর আপনার যদি টিআইএন এর কোন প্রয়োজনীয়তা না থাকে তাহলে আপনার উত্তরা থেকে উপর কমিশন করার ক্ষেত্রে বারবার করার জন্য আবেদন করতে পারবেন। টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড এবং টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম উপকর কমিশনারের Inspection অথবা Hearing এর মাধ্যমে কিংবা অবেদনের উপর ভিত্তি করে আপনার টিআইএন এর কার্যক্রম বাতিল করতে পারবেন।

টিন সার্টিফিকেট হারিয়ে গেছে করনীয় কি?

Tax Identification Number অথবা টিন সার্টিফিকেট হারিয়ে গেলে এমতাবস্থায় অনলাইন থেকে হারানোর টেন সার্টিফিকেট আপনি আপনি খুব সহজেই বের করতে পারবেন। টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড টিআইএন সনদ খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি ডকুমেন্টস। টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম টিন সার্টিফিকেট টি যদি হারিয়ে যায় তাহলে আপনি আপনার Tax Circle Office থেকে আপনি আবেদন করে পুনরায় সেটি সংগ্রহ করতে পারবেন। 
তবে টিন সার্টিফিকেট হারিয়ে গেলে অনলাইন থেকে আপনি আপনার সেগুলো সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে আপনাকে টিন রেজিস্ট্রেশন আপনার ইউজার নেবে এবং পাসওয়ার্ড জমা দিতে হবে এবং পাসওয়ার্ড জমা না দিয়ে থাকলে আপনি বের করতে পারবেন করার সময় আপনার মোবাইল নাম্বারটা জমা দেওয়া থাকে। সে মোবাইল নাম্বার দ্বারা আপনি সকল কিছু পাবেন। 

টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম Income Tax Helpline এ ফোন করে আপনি আপনার বিস্তারিত তথ্য সেখানে দিয়ে সেখান থেকে আপনি টেন সার্টিফিকেটের মাধ্যমে আপনি সেগুলো রিসিভ করতে পারবেন। টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড পুনরায় লগইন করলেও আপনার রেজিস্ট্রেশন বের করতে পারবেন এবং নেট পারবেন এছাড়াও আপনার সহযোগিতা আপনি শুধুমাত্র আপনার এনআইডি নাম্বার টিন সার্টিফিকেট বের করে নিতে পারবেন।

ই রিটার্ন ওয়েবসাইট হতে কিভাবে টিন সার্টিফিকেট বের করা যায়? (FAQ)

টিন নাম্বার দিয়ে আপনি টন সার্টিফিকেট বের করার জন্য প্রথমে সেটি ভিজিট করতে হবে। https://etaxnbr.gov.bd এবং eReturn অপশান টিতে যান। টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড টিআইএন নাম্বার দিয়ে আপনি পাসওয়ার্ড দিয়ে সেখানে সাইন ইন করুন। এর পরে Tax Record অপশন টি থেকে Tin Certificate লিংকের ভিতরে ক্লিক করণ। 
টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম এবার Download বাটন টিতে ক্লিক এতে আপনি আপনার সার্টিফিকেট পিডিএফ হিসেবে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। এ নিয়ম অবলম্বন করে আপনি আপনার সহজে টেন সার্টিফিকেট ওয়েবসাইট হতে পেয়ে যাবেন। ওয়েবসাইট সংগ্রহ করতে হলে আপনার সেগুলো সব কিছু টি আই এন সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে পারবেন।

লেখকের কথা

টিন সার্টিফিকেট ডাউনলোড এবং টিন সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম! আমি একজন ব্লগার, আমরা প্রতিনিয়ত এখানে কন্টেন্ট পাবলিশ করি এবং এই কন্টের গুলোর দ্বারা আপনাদেরকে সাহায্য করার চেষ্টা করি। আমরা চেষ্টা করে যাতে আপনাদের সকল সময় সাহায্য করতে পারি। আর তাই আমরা প্রতিনিয়ত এখানে প্রত্যেকদিন আমরা রেগুলার কন্টেন্ট পাবলিশ করি। যাতে আমরা সব সময় আপনাদের সাহায্য করতে পারি। তাই আপনার যদি এগুলো ভালো লেগে থাকে তাহলে আপনার বন্ধুদের সঙ্গে সাহায্য করে আমাদের পাশে থাকবেন। আসসালামু আলাইকুম!

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

শামিম বিডির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url